Bangal Press
ঢাকাWednesday , 22 November 2023
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. এক্সক্লুসিভ
  5. ক্যাম্পাস
  6. খেলাধুলা
  7. চাকরির খবর
  8. জাতীয়
  9. তথ্যপ্রযুক্তি
  10. বিনোদন
  11. ভ্রমণ
  12. মতামত
  13. রাজনীতি
  14. লাইফস্টাইল
  15. শিক্ষা জগৎ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সাভারে পিএসসির সহকারি পরিচালকের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগে মামলা

ডেস্ক রিপোর্ট
November 22, 2023 3:10 pm
Link Copied!

ঢাকার সাভারে মামলায় বেআইনি জনতাবদ্ধ হয়ে জমিতে অনাধিকার প্রবেশ করে মারপিট করে সাধারণ জখম করাসহ চাঁদাদাবি, চুরি ও ভয়ভীতির হুমকি প্রদানের অপরাধ সংঘটনের অভিযোগে পাবলিক সার্ভিস কমিশনের (পিএসসি) সহকারি পরিচালক মো. মাহবুবুর রহমানের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত সোমবার সাভারের ভাকুর্তা ইউনিয়নের মোগড়াকান্দার মো. লুৎফর রহমান বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন।
মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, মাহবুবুর রহমানসহ (৫৮) তার ৭/৮ জন সহযোগী সন্ত্রাসী ও ভূমি দস্যু প্রকৃতির লোক। তার একটি ক্যাডার বাহিনী আছে। সাভার মডেল থানাধীন মোগড়াকান্দার পাচুলী মৌজায় কবির হোসেন ক্রয় সূত্রে ৬.২৫ শতাংশ জমির মালিক। বাদী মো. লুৎফর রহমান ওই জমির কেয়ারটেকার। গত ২৭ অক্টোবর বেলা সাড়ে ১২টার দিকে ওই জমিতে বালু ভরাটের কাজ শুরু করলে, বিবাদী মাহবুবুর রহমানসহ সহযোগী অজ্ঞাতনামা ৭/৮ জন দেশীয় মারাত্নক অস্ত্রে শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বেআইনী জনতাবদ্ধে ওই সম্পত্তির মধ্যে অনধিকারভাবে প্রবেশ করে।
বালু ভরাট করতে হলে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদার টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে বিবাদীরা লাঠি দিয়ে বাদীর শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে জখম করে। বাদীর চিৎকারে তার চাচাতো ভাই জুলহাস (৪৫) ও ভাগ্নে শাহাদাৎ (২৮) এগিয়ে যায়। তারা বাদীকে রক্ষার চেষ্টা করলে তাদেরকেও লাঠি দিয়ে আঘাত করে জখম করে।
একপর্যায়ে তারা বাদীকে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করেন। পরে বাদী ও তার দুই ভাই সেখানে উপস্থিত লোকজনদের সহায়তায় সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কময়েক্সে গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নেন।
এ ব্যাপারে মামলার বাদী ভুক্তভোগী লুৎফর রহমান বলেন, ঘটনার দিন জমির মালিক কবির স্যারের সাথে বালু ফেলা নিয়ে চাদা দাবীর জেরে অভিযুক্ত মাহবুব বাকবিতন্ডায় জড়ায়। মাহবুব তার বাহিনী নিয়ে কবির স্যারের উপর হামলা করতে গেলে আমি তাদের বাধা দেই। এসময় তারা আমাকে মারধর করতে থাকে। পরে আমার চাচাতো ভাই ও ভাগ্নে আমাকে বাঁচাতে আসলে তাদেরকেও মারধর করে এবং জানে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। পরে আমি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে সাভার মডেল এ বিষয়ে ঘটনার দিনই একটি অভিযোগ দায়ের করি। কিন্তু ঘটনার প্রায় ১৫ দিন হঠাৎ জানতে পারি অভিযুক্ত উলটো আমার বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যে মামলা দায়ের করেছে। পরে আমি আদালত থেকে জামিন নিয়েছি। আমি এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।
লুৎফর রহমান আরও বলেন, এই মাহবুব তার চাকরির প্রভাব খাটিয়ে দীর্ঘদিন যাবত এলাকার মানুষকে জিম্মি করে রেখেছে। কেও তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলেই তাদেরকে তার বাহিনীর দ্বারা আক্রমণ ও মিথ্যে মামলার শিকার হতে হয়।
বিষয়টি নিয়ে অভিযুক্ত মাহবুবুর রহমানের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি রিসিভ করননি। পরে তার মুঠোফোনে খুদে বার্তা পাঠালেও তিনি কোন উত্তর দেননি।
এবিষয়ে ভাকুর্তা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আসওয়াদুর রহমান বলেন, এঘটনায় থানায় নিয়মিত মামলা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে মারামারির ঘটনার সত্যতা পেয়েছি। এতে দুই পক্ষেরই কাউন্টার মামলা করেছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলমান রয়েছে। পাশাপাশি আসামি গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।



সালাউদ্দিন/সাএ

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।