Bangal Press
ঢাকাMonday , 5 February 2024
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. এক্সক্লুসিভ
  5. ক্যাম্পাস
  6. খেলাধুলা
  7. চাকরির খবর
  8. জাতীয়
  9. তথ্যপ্রযুক্তি
  10. বিনোদন
  11. ভ্রমণ
  12. মতামত
  13. রাজনীতি
  14. লাইফস্টাইল
  15. শিক্ষা জগৎ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ঘুষের টাকা ফেরত পেতে লাশ হয়ে বিদ্যালয়ে এলেন শিক্ষিকা

Link Copied!

বিনাবেতনে প্রায় ২৫ বছর চাকুরির পর এমপিওভুক্তির জন্য প্রধান শিক্ষক ও সভাপতিকে দশ লাখ টাকা ঘুষ দিয়েও এমপিওভুক্ত না হওয়ায় হার্টঅ্যাটাক করে মারা যান শিক্ষিকা রোকেয়া খাতুন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে এলাকাবাসীসহ স্বজনরা মরদেহ নিয়ে ঘুষের টাকা ফেরতের জন্য সোমবার সকালে স্কুল মাঠে বিক্ষোভ করেছে। সংবাদ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পেয়ে তিনদিনের মধ্যে টাকা ফেরতের নির্দেশ দেয়াড় পর বিক্ষোভ তুলে মরদেহ নিয়ে বাড়িতে গিয়ে দাফন করেছে স্বজনরা।
সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়নের গোদাগাড়ী চকপাড়া গাড়াবেড় বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে এমন ঘটনা ঘটেছে। মৃত স্কুল শিক্ষিকা রোকেয়া বেগম (৫৫) গাড়াবেড় গ্রামের খয়ের উদ্দিনের মেয়ে ও একই গ্রামের আব্দুল করিমের স্ত্রী।
মৃত শিক্ষিকা রোকেয়া খাতুনের ভাই মিজানুর রহমান জানান, গোদাগাড়ী চকপাড়া গাড়াবেড় বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৯৯৮ সালে রোকেয়া খাতুন সহকারী শিক্ষিকা (ইংরেজি) হিসেবে যোগদান করেন। দীর্ঘ ২৫ বছরেও তিনি কোন বেতন ভাতা পাননি। ২০২২ প্রতিষ্ঠানটি এমপিওভুক্ত হলেও তিনি শিক্ষক হিসেবে এমপিও ভুক্তি হয়নি। এমপিও ভুক্তির জন্য নানা তদবির করেও কোনো কাজ হয়নি। এমপিওভুক্তির জন্য টাকা লাগবে স্কুলের প্রধান শিক্ষক ফরিদুল ইসলাম ও সভাপতি দ্বীন মোহাম্মদ বাবলুর এমন চাহিদা মোতাবেক কয়েক দফায় দুজনকে ১০ লক্ষ টাকা ঘুষ প্রদান করা হয়।
তিনি জানান, এক দফায় তিনি নিজহাতে বোনের এমপিওভুক্তির জন্য প্রধান শিক্ষককে ২লাখ টাকা দিয়েছেন। সম্প্রতি বোন বোর্ডে গিয়ে জানতে পারেন তার এমপিওভুক্তি হয়নি। এমনকি ইংরেজি শিক্ষিকা হিসেবে যোগ দিলেও বোর্ডে গিয়ে দেখেন তাকে সমাজ বিজ্ঞান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। পরে তিনি ঘুষের টাকা ফেরত চাইলে সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক অপারগতা প্রকাশ করলে ২৯ জানুয়ারি টেনশনে বোন হার্টঅ্যাটাক করেন। তাকে ঢাকার নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার ভোরে মারা যান তিনি। মৃত্যুর পর তার মরদেহ এলাকায় আনা হলে স্বজনরা লাশ নিয়ে স্কুল প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ করেন।
মৃত রোকেয়া খাতুনের ভাতিজা মোতালেব হোসেন রঞ্জু জানান, কয়েকদিন আগেও স্কুলের সভাপতি দ্বীন মোহাম্মদ বাবলু এমপিওর অন্তর্ভুক্ত করার জন্য ২ লাখ টাকা ১০মিনিটের মধ্যে তার কাছে পৌঁছে দিতে বলেন। আমি ৩০মিনিটের মধ্যে ৩০ কিলোমিটার মোটরসাইকেল চালিয়ে এসে উপজেলা পরিষদের গিয়ে ২লাখ টাকা দিয়েছি। তিনি জানান, জমি-জমা বিক্রি করে টাকা দফায় মোট ১০লাখ টাকা ঘুষ দেয়া হয়েছিল। তিনি আরো জানান, আমার টাকাও গেলো, চাকুরিও হলো না-এখন আমার ছেলে-মেয়েকে কি দিবো-এ কথা বলে চাচী হার্টঅ্যাটাক করেছিলেন।
উপজেলা নির্বার্হ অফিসার মো. সোহরাব হোসেন জানান, সংবাদ পেয়ে পুলিশসহ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়। এরপর স্বজন ও স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির সাথে কথা বলে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যাওয়ায় আগামী ৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে টাকা ফেরত দেয়ার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। তিনি ঘটনাটি বেদনাদায়ক বলে উল্লেখ করে বলেন, দীর্ঘ ২৫ বছরে বিনা বেতনে চাকুরি এবং এমপিও কাগজ রিজেক্ট হওয়া দু:খজনক। বিষয়টি তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন তিনি। 
ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও কাজিপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান দ্বীন মোহাম্মদ বাবলু ও প্রধান শিক্ষক ফরিদুল ইসলাম জানান, এমপিওভুক্তির খরচের জন্য ৪ লাখ টাকার মতো নেয়া হয়েছিল। উপজেলা নির্বাহী অফিসার নির্দেশনা মোতাবেক স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির বৈঠক করে সব টাকা ফেরত দেয়া হবে।



বাঁধন/সিইচা/সাএ

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।